কেন্দ্রে কেন্দ্রে ভোট চোর ধরার জন্য বসে থাকবেনঃ বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী

পুলিশ দিয়ে আর যাই করেন ভোটে জিততে পারবেন না। ইয়াহিয়া ভুট্টো পারেনি, শেখ হাসিনাও জোর করে ভোট নিতে পারবেন না। গ্রেপ্তার-হয়রানি বন্ধ করুন, নিরপেক্ষ নির্বাচন করুন ভোটে আমরা জিতলে জিতবো, আপনারা জিতলে জিতবেন। ২৫শে ডিসেম্বর বিকালে টাঙ্গাইল-৪ কালিহাতী আসনে ঐক্যফ্রন্ট মনোনীত ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার লিয়াকত আলীর নির্বাচনী জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতাকালে তিনি এসব কথা বলেন।

বঙ্গবীর বলেন, প্রতিটা আসনে খালেদা জিয়া প্রার্থী, ধানের শীষে ভোট দিয়ে স্বাধীনতা ও গণতন্ত্রকে বিজয়ী করুন। গ্রেপ্তার-হয়রানি বন্ধ করুন, নিরপেক্ষ নির্বাচন করুন ভোটে আমরা জিতলে জিতবো, আপনারা জিতলে জিতবেন। আপনারা কেন্দ্রে কেন্দ্রে ভোটচোর ধরার জন্য বসে থাকবেন। লুহুরিয়াতে ঐক্যফন্ট মনোনীত ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার লিয়াকত আলীকে ৩/৪ ঘণ্টা আটকে রেখেছিলো পুলিশ বাহিনী। ৭১-এর পর ৭৫ এ বেশি লোক পাওয়া যায়নি, বঙ্গবন্ধু হত্যার প্রতিবাদে আমি আমার জীবন-যৌবন পার করেছি।

এজন্যই আজ ভালো আছেন, ক্ষমতায় আছেন। আওয়ামী প্রার্থী সোহেল হাজারীর ক্যাডার বাহিনী দিয়ে পিতৃতুল্য লতিফ সিদ্দিকীর গাড়িতে হামলা করতে পারে সে নির্বাচিত হলে আর যাই হোক আপনারা শান্তিতে থাকতে পারবেন না। ৩০ তারিখে স্বাধীনতা, গণতন্ত্র রক্ষায় ধানের শীষে ভোট দিন।

উপজেলা বিএনপি’র আহ্বায়ক শুকুর মাহমুদের সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন, কেন্দ্রীয় বিএনপি’র ভাইস চেয়ারম্যান বেগম সেলিমা রহমান, বিএনপি চেয়ারপারসনের  উপদেষ্টা আতাউর রহমান ঢালী,  জেলা বিএনপি’র জিয়াউল হক শাহীন, এডভোকেট মমতাজ বেগম, মনিরুল ইসলাম মনির, উপজেলা বিএনপি’র উপদেষ্টা ইঞ্জিনিয়ার আবদুল হালিম, উপজেলা কৃষক শ্রমিক জনতালীগের সভাপতি লুৎফর রহমান সিদ্দিকী, সাধারণ সম্পাদক ইথার সিদ্দিকী, উপজেলা জামায়াতের শূরা সদস্য এসএম আঃ করিম প্রমুখ।

সূত্রঃ মানবজমিন (http://mzamin.com/article.php?mzamin=151537)

Close Menu
×